আজ বুধবার,১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ,২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ,রাত ১১:১৭

গফরগাঁওয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু

News

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জমি নিয়ে বিরুধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত বাবুল(৫৫) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় বুধবার সকালে মারা গেছে।সে উপজেলার সালটিয়া ইউনিয়নের ষোলহাসিয়া গ্রামের শামসুল হকের ছেলে।
গত শুক্রবার(২০ মে) বিকালে উপজেলার সালটিয়া ইউনিয়নের ষোলহাসিয়া গ্রামে হামলার ঘটনাটি ঘটে।ওই রাতেই নিহতের ভাই মোঃ ফারুক(৩৫) বাদি হয়ে একই এলাকার নুর ইসলাম(৫০),সুবল(২৫),সুমন(৩০),ইসমাইল(৩৫),নিজাম উদ্দিন(৫৫),সোহাগ(৩০)সহ অজ্ঞাত কয়েক জনের বিরুদ্ধে গফরগাঁও থানায় মামলা দায়ের করে।
স্থানীয়, পরিবার ও মামলা সূত্রে জানা যায়,জমির মালিকানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ফারুক ও নুরুল ইসলামের পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।গত শুক্রবার বিকালে এরই জের ধরে সংঘর্ষে শামসুল হকের ছেলে বাবুল(৫৫) এবং তার ছেলে আনছারুল(৩০),ভাই বাদল(৩৫),ভাতিজা মিজান(১৮) ও ভাগিনা সাদ্দাম হোসেনসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়।স্থানীয়রা গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।গুরুতর আহত বাবুলের পরিস্থিতির অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নুরুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।
নিহতের ভাই ফারুক আহম্মেদ বলেন,জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ছিল।ঘটনার কয়েক দিন আগেও স্থানীয় ভাবে ঘটনাটির মিমাংসা করা হয়।হঠাৎ করে নুর ইসলাম তার সহযোগীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে আমার ভাই,ভাতিজা ও ছেলেকে গুরুতর আহত করে।আমার ভাই বাবুল ঢাকার হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায়।আমি আমার ভাইয়ের হত্যাকারীদের বিচার দাবি জানাই।

নিহতের মেয়ে ছনিয়া আক্তার পিতার হত্যাকারীদের বিচার দাবি করে বলেন, ওরা নৃশংস ভাবে আমার বাবাকে হত্যা করেছে।আইনের চোখে দোষীদের ফাঁসিতে ঝুলানো হউক।
গফরগাঁও থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন,জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মারামারি ঘটনায় মামলা হয়েছে।আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

     আরও সংবাদ

বিজ্ঞপ্তিঃ

** আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুন :- ০১৩১৬-২৯৫৪৩০/০১৬১৫-৭২৯৪৬৬ **
error: Content is protected !!